আজ মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
«» নতুন প্রার্থী হিসেবে চমক দেখাতে চান মুসলিমা খাতুন নীতি «» প্রজাপতি প্রতীক পেয়েই ভোটের মাঠে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী শিউলী বেগম «» শিবগঞ্জে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন নুরজাহান বেগম «» ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম রাব্বানী «» শিবগঞ্জে মনোনয়ন জমা শেষ, চেয়ারম্যান ৬, ভাইস-চেয়ারম্যান ৭, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান ৩ «» ভোটারদের উৎসাহেই নির্বাচনে এসেছি -ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উজ্জ্বল «» ভোটারদের উৎসাহেই নির্বাচনে এসেছি -ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উজ্জ্বল «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ঈদ পূর্ণমিলনী «» শিবগঞ্জে শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ফুটবল টুর্নামেন্ট ও পুরস্কার বিতরণ «» শিবগঞ্জে সাহাপাড়া আলহেরা আল জামিয়াতুল ইসলামীয়ার আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী

শরতকালে নীল অাকাশে প্রকৃতির সাথে মেঘের খেলা

এম এ করিম : শরৎকালে কাশবনে ছেঁয়ে ঢেঁকেছে যেন পেঁজাতুলার উপর মেঘের অাকাশ।প্রকৃতির গুনজনে চারিদিগ মৌমাছির মৌ মৌ শব্দে মুখরিত করে গ্রাম বাংলার অাশপাশের ফুলের বাগান।

শরতের মেঘ অাকাশে সূর্যের সাথে লুকোচুরিত কাশবনের অপরুপ দিগন্ত যেন ছড়িয়ে পড়ছে প্রকৃতির উপর।

লাল রক্তিম সূর্যের মিষ্টি মধুর তীব্রতা শরতের উত্তেজনার অাঁচড় পড়ছে যেন প্রকৃতির উপড়।

মধ্যোশরতে রোদ্র ছাঁয়ার খেলায় মত্ত মায়ায় প্রকৃতিতে মহাগ্রস্ত শরতের চরাচর।এছাড়াও,প্রকৃতির সবুজ বৃক্ষে ফুলে ফলের নরম মৃদু বাতাসের হাওয়ায় দোলে শরতের কাশবন।

প্রকৃতির কাশবনে শরতের শুভ্রতার বন্দনা যেন শুনতে পাই গ্রামের অাকাশে-বাতাসে।শরতের সূর্য অার প্রকৃতির ভ্রমন প্রান্তর জুড়ে চলে শরতের অন্যতম গগনপ্রান্তে।

অাকাশ ছুঁয়েও যেন না ছুঁয়ে লুকোচুরি খেলা করে শরতের মেলা।তাদের দুষ্টামিকে শাসন করতে মাঝে মাঝে মুখ ভার করে হাজির হয় কালো রংঙের মেঘ নামক তাদের অভিভাবক।

যদিও রাগের অাভাস শেষ হতে সময় লাগেনা অাবারও চলে উচ্ছলতা অার প্রান প্রাচুর্যের উৎসব।শুধু অাসমানেই নয়,অতলস্পর্শের গহ্বরেও রয়েছে মেঘের সঙ্গি অার উৎসবে তাই যোগ দিয়েছে বন্ধুকাশ।

সূর্যের উপস্থিতিতে আর হাসির দূতেই হারাচ্ছে শরতের চরাচর।মেঘের যে রুপ মাটিতে প্রাণ সঞ্চার করে সে রকুম জলরাশি বুকে ধারন করে অাছে সবার মোহময়তা।

শরতের শুভ্রতার এই খেলায় মাতাল হয়ে পড়ে মৌমাছি সহ তাদের গুনগাহীরা, শুধু তাই নয়,তাদের এই মাতোয়ারাই উড়োউড়িতে হাসছে যেন নাম না জানা অসংখ্য ফুলবন।

সূর্যের অালোয় রাতভর অপেক্ষায়মান হয়ে পড়ার পর ক্লান্ত হয়ে গ্রামের কর্দমময় ধুলো ও বালি কোণায় ঝড়ে পড়ে শিউলী ফুল।

প্রকৃতির এই মায়া মমতা ধরে রাখতে শুধু গ্রাম নয় শহরকেও সাজাতে প্রসিদ্ধ হয়ে এগিয়ে অাসতে হবে ছোট-বড় সমশ্রেণী মানুষদেরও।

নতুন প্রজন্মের কাছে চিহ্নিত করে তুলতে হবে শরতের অন্যতম অাক্রর্ষণ সূর্য ও মেঘ অাকাশে বয়ে যাওয়া নদীর ধারে কাশবন ও শিউলী ফুলের রুপকার,নতুবা এমন শরত অচেনা থেকেই যাবে।

গ্রামিণ জনপদ ছাড়াও,শহরের মানুষও শ্রুভ্রতার খোঁজে ভীর জমায়েত করে ঢলে পড়ছে শরতের প্রকৃতির কোলে,অার শরত ও প্রকৃতি যেন অপার হাতে সাজিয়েছে সে অাপন মনে।

আপনার মতামত দিন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :