আজ রবিবার, ১৬ Jun ২০২৪, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
«» নতুন প্রার্থী হিসেবে চমক দেখাতে চান মুসলিমা খাতুন নীতি «» প্রজাপতি প্রতীক পেয়েই ভোটের মাঠে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী শিউলী বেগম «» শিবগঞ্জে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন নুরজাহান বেগম «» ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম রাব্বানী «» শিবগঞ্জে মনোনয়ন জমা শেষ, চেয়ারম্যান ৬, ভাইস-চেয়ারম্যান ৭, মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান ৩ «» ভোটারদের উৎসাহেই নির্বাচনে এসেছি -ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উজ্জ্বল «» ভোটারদের উৎসাহেই নির্বাচনে এসেছি -ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উজ্জ্বল «» চাঁপাইনবাবগঞ্জ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশনের উদ্যোগে ঈদ পূর্ণমিলনী «» শিবগঞ্জে শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ফুটবল টুর্নামেন্ট ও পুরস্কার বিতরণ «» শিবগঞ্জে সাহাপাড়া আলহেরা আল জামিয়াতুল ইসলামীয়ার আয়োজনে ঈদ পুনর্মিলনী

আড়াই মাস যাবৎ এসিল্যান্ড নেই, ভোগান্তিতে শিবগঞ্জের অসংখ্য মানুষ

ডেস্ক রিপোর্ট : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসে আড়াই মাস ধরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদটি খালি রয়েছে। এতে উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ভূমি সংক্রান্ত সেবা কার্যক্রম অত্যন্ত মন্থর গতিতে চলছে । নামজারি জমা খারিজের জন্য আবেদনের হাজার হাজার ফাইলের স্তূপ জমে আছে । এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন অসংখ্য মানুষ । উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের ১৩ অক্টোবর মাস থেকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. বরমান হোসেন বদলি জনিত কারণে অন্যত্র চলে গেছেন। তারপর থেকে এ অফিসের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করে আসছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। নামজারি জমা খারিজের অভাবে জমি বিক্রি প্রায় বন্ধ হয়ে আছে । জমির মালিকেরা প্রায় ৪-৫ মাস আগে নামজারি জমাখারিজের আবেদন করেও এখন পর্যন্ত জমির নামজারি জমা খারিজ করতে পারেননি বলে অভিযোগ উঠেছে।

চিকিৎসাসহ নানা জরুরি কারণে নগদ টাকার একান্ত প্রয়োজন হওয়া সত্ত্বেও শুধুমাত্র নামজারি জমা খারিজের কারণে জমি বিক্রি করতে পারছেন না অনেকে। কবে নাগাদ জমাখারিজ হবে তাও নিশ্চিত করে বলতে পারছেন না ওই অফিসের কেউই ।

কয়েকটি ইউনিয়নের ভূমি অফিসের কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, দীর্ঘদিন থেকে এসিল্যান্ডের পদটি খালি থাকায় জনগণের অনেক ফাইল আটকে আছে। গত কয়েক মাস ধরে ভূমি সংক্রান্ত বহু মামলার নিষ্পত্তি হচ্ছে না । জমির নামজারি জমা খারিজের দেড় থেকে দুই হাজার আবেদন জমে আছে অফিসে। এগুলো সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার স্বাক্ষর না হওয়ায় আবেদকারীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শিমুল আকতার জানান, উপজেলায় নতুন যোগদান করেছি। এসিল্যান্ডের শূন্য পদ পূরণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে ।

আপনার মতামত দিন :
সংবাদটি শেয়ার করুন :